Lead Banner

ফাইনালে ভারত

5

ক্রীড়া ডেস্ক: সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের সেমিফাইনালে পাকিস্তানকে ৩-১ গোলে হারিয়ে ফাইনালে পৌঁছে গেছে ভারত। ফাইনালে তাদের প্রতিপক্ষ মালদ্বীপ।

বুধবার (১২ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা ৭টায় বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হয় গ্রুপ ‘এ’র রানার্স আপ দল পাকিস্তান এবং গ্রুপ ‘বি’র চ্যাম্পিয়ন ভারত। ম্যাচের প্রথমার্ধ কাটে গোলশূন্যভাবে। প্রথম মিনিটেই গোল করার সুযোগ পেয়েছিল পাকিস্তান। কিন্তু মেহমুদ খানের পাস থেকে পাওয়া বলে হেড করেও অল্পের জন্য ভারতের গোলবার মিস করেন ফরোয়ার্ড মোহাম্মদ রিয়াজ। তবে এরপরই পাকিস্তানের রক্ষণকে চেপে ধরে ভারতীয় আক্রমণভাগ। যদিও গোলের দেখা পাননি ভারতের মনভীর সিং-শুভাশিস বোসরা।

ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধে আক্রমণের ধার বাড়ায় ভারত। দ্বিতীয়ার্ধ শুরুর মাত্র ২ মিনিট (ম্যাচের ৪৮ মিনিট) পরেই ভারতকে কাঙ্ক্ষিত গোল এনে দেন ফরোয়ার্ড মনভীর সিং। আশিক কুরুনায়নের ক্রস থেকে বল পেয়ে বাঁ পাশ থেকে ডান পায়ের শটে পাকিস্তানের গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন মনভীর।

গোল খেয়ে ম্যাচে ফেরার জন্য মরিয়া পাকিস্তানের কয়েকটি প্রচেষ্টার অপমৃত্যু হয় ভারতের রক্ষণে। উল্টো ৬৯ মিনিটে আরও এক গোল খেয়ে বসে পাকিস্তান। ভিনিত রাইয়ের পাস থেকে বল পেয়ে ডান পায়ের দারুণ শটে গোল করেন ফরোয়ার্ড মানভীর সিং।

তৃতীয় গোলটি আসে ম্যচের ৮৪ মিনিটে। এবারের গোলের উৎস কুরুনায়ন। তার ক্রস থেকে লাফিয়ে ওঠা বলে গোলবারের ডান প্রান্তে থাকা সুমিত পাসির হেড থেকে বল সরাসরি পাকিস্তানের জালে প্রবেশ করলে গোলের ব্যবধান ৩-০ করে ভারত।

ম্যাচের শেষদিকে এসে দুই দলের দুই খেলোয়াড় লাল কার্ড দেখলে কিছুটা উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। ৮৬ মিনিটে আক্রমণাত্বক আচরণের দায়ে পাকিস্তানের মোহসিন আলী এবং ভারতের লালিয়ানজুয়ালাকে লাল কার্ড দেখান রেফারি।

এর ঠিক দুই মিনিট (৮৮ মিনিট) পরেই পাকিস্তানের হয়ে সান্ত্বনাসূচক গোল করেন মোহাম্মদ আলী। হাসান বশিরের পাস থেকে বল পেয়ে ডি-বক্সের বাইরে থেকে জোরালো শটে করা এই গোলে ব্যবধান ৩-১ গোলে নামিয়ে আনা ছাড়া আর কোনো কাজে লাগেনি পাকিস্তানের।

এই জয়ে সাফের ফাইনালে পা রেখেছে ভারত। দিনের অন্য সেমিফাইনালে নেপালকে ৩-০ গোলে হারিয়ে ফাইনালে ওঠেছে মালদ্বীপ। আগামী ১৫ সেপ্টেম্বরের ফাইনালে মালদ্বীপের মুখোমুখি হবে ভারত।

 

 

বীকনবাংলা/ফায়সাল