Lead Banner

সৌদি থেকে ফিরলেন ৬৫ নির্যাতিতা নারী

18

সৌদি আরব প্রতিনিধি : সৌদি আরবে নির্মম, নিষ্ঠুর ও অমানবিক নির্যাতনের শিকার হয়ে দেশে ফিরছেন আরো ৬৫ নারী গৃহকর্মী। এদের মধ্যে ব্র্যাক মাইগ্রেশন প্রোগ্রামের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ফিরছেন ৩৭ নারী গৃহকর্মী।

রিয়াদ মাহারা হিউম্যান রিসোর্স কোম্পানি ও সফর জেল (ইমিগ্রেশন ক্যাম্প) থেকে ইতিহাদ এয়ারওয়েজ যোগে একটি ফ্রাইটে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে পৌঁছছেন তারা।

ব্র্যাক মাইগ্রেশন প্রোগ্রামের প্রধান শরিফুল হাসান বলেন, গত দুই মাসে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক নারীকর্মী সৌদি আরবের জেল থেকে তিক্ত অভিজ্ঞতা নিয়ে দেশে ফিরেছেন। তাদের অধিকাংশই শুধু পরনের কাপড় নিয়ে দেশে ফেরেন।

তিনি বলেন, মানবিক ও সামাজিক দায়বদ্ধতার অংশ হিসেবে ব্র্যাক মাইগ্রেশন প্রোগ্রাম এসব নির্যাতিত নারীর পাশে দাঁড়াচ্ছে।

সৌদি আরবের বিভিন্ন এলাকায় কর্মরত এসব নারী গৃহকর্মী মালিকদের অমানবিক নির্যাতন সইতে না পেরে ইমিগ্রেশন ক্যাম্পে আশ্রয় নেন। পরে রিয়াদস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস এবং প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের ওয়েজ অর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের আর্থিক সহায়তায় এই নারী শ্রমিকদের দেশে ফিরিয়ে আনা হচ্ছে।

জনশক্তি, কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর (বিএমইটি) তথ্য মতে, ২০১৭ সালে অভিবাসী নারীর সংখ্যা ছিলো ১২ লাখ ১৯ হাজার ৯২৫ জন, যা মোট অভিবাসন সংখ্যার ১৩ শতাংশ। ১৯৯১ থেকে ২০০৩ সাল পর্যন্ত অভিবাসন প্রত্যাশি নারী শ্রমিকদের একা বিদেশে যেতে বাধা দেয়া হলেও পরবর্তীতে ২০০৩ এবং ২০০৬ সালে কিছুটা শিথিল করা হয়। ২০০৪ সালের পর থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত নারী শ্রমিকের অভিবাসন হার ক্রমাগত বাড়তে থাকে। ২০১৫ সালে এ সংখ্যা দাঁড়ায় মোট অভিবাসনের ১৯ শতাংশে।

বীকনবাংলা/এইচআর