Lead Banner

মন্দিরে নারীকে ফের বাধা দেয়ায় বিক্ষোভ

5

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ভারতের সুপ্রিম কোর্টের রায়ের পরও হিন্দুদের পবিত্র ধর্মীয় স্থান সবরিমালা মন্দিরে প্রবেশ করতে আবারও বাধার মুখে পড়েছে নারীরা। বুধবার সেখানে প্রবেশ করতে বাধা পেয়ে বিক্ষোভ দেখান নারীরা।

বৃহস্পতিবার (১৮ অক্টোবর) কেরালার শতাব্দী প্রাচীন মন্দিরটিতে প্রবেশ করতে গিয়েও বাধার মুখে পড়েছেন মার্কিন সংবাদমাধ্যম নিউ ইয়র্ক টাইমস’র দুই সাংবাদিক।

ভারতের কট্টোরপন্থী সংগঠন রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘ প্রধান মোহন ভগন্ত বলেছেন, সর্বোচ্চ আদালত রায় দেয়ার ক্ষেত্রে মানুষের অনুভূতি বিবেচনায় নেয়নি।

কেরালার পাহাড়ের ওপর অবস্থিত সবরিমালা মন্দিরে ১০ থেকে ৫০ বছর বয়স পর্যন্ত নারীরা প্রবেশ করতে পারতেন না। মূলত ঋতু চলাকালীন নারীদের মন্দিরে প্রবেশের অনুমতি ছিলো না। হিন্দুধর্মানুযায়ী এ সময়ে নারীদেরকে অপরিচ্ছন্ন বিবেচনা করা হয়। ২৮ সেপ্টেম্বর সুপ্রিম কোর্ট নারীদের প্রবেশাধিকারের এ বয়সসীমা তুলে নেয়। তবে বুধবারও মন্দির দর্শনের মৌসুম শুরু হলেও সেখানে প্রবেশ করতে পারেননি নারীরা।

এনডিটিভির ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, বৃহস্পতিবার সকালে নিউ ইয়র্ক টাইমসের দুই সাংবাদিক মন্দিরের পাম্বা গেট অতিক্রমের পর বিক্ষোভকারীদের বাধার মুখে পড়েন। দিল্লির বাসিন্দা সুসানি রাজ তার বিদেশি নাগরিক সহকর্মীকে নিয়ে সংবাদ সংগ্রহ করতে মন্দিরের ভেতরে যেতে চেয়েছিলেন।

এনিডিটিভি জানিয়েছে, বিক্ষোভকারীরা মানব দেয়াল তৈরি করে তাদের ভেতরে প্রবেশে বাধা দেয়। এক প্রত্যক্ষদর্শী এনডিটিভিকে বলেন, বাধার মুখে পুলিশের সহায়তায় ফিরে যেতে বাধ্য হয় ওই দুই সাংবাদিক।

ওই প্রত্যক্ষদর্শী বলেন, ভক্তদের ব্যাপক বিক্ষোভ ছিল সেটা। তাদের বিরুদ্ধে স্লোগান দিতে দিতে রাস্তায় বসে পড়ে বিক্ষোভকারীরা। তাদের ফিরে যাওয়া ছাড়া উপায় ছিল না আর তারা সেটাই করেছে।

ওই ঘটনার পর জেলা প্রশাসন থেকে আগামী ২৪ ঘণ্টায় মন্দির এলাকার ৩০ কিলোমিটারের মধ্যে বড় জমায়েত নিষিদ্ধ করেছে। রাজ্যজুড়ে ধর্মঘট ডেকেছে ক্ষমতাসীন বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোট।

বীকনবাংলা/এইচআর