Lead Banner

২১ বছর পর পরিসমাপ্তি ঘটছে ‘সিআইডি’র!

29

বিনোদন ডেস্ক : টানা ২১ বছর ধরে ভারতের অতি জনপ্রিয় ধারাবাহিক টিভি শো ‘সিআইডি’ প্রচারিত হয়েছে এবং দর্শকদের মন জয় করে আসছে। এর সূচনা ঘটেছিল ১৯৯৭ সালে।

সে সময় থেকে এখন পর্যন্ত এই জনপ্রিয় ধারাবাহিকটি প্রচার হয়ে আসছে এবং ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছে। ভারতের টেলিভিশন চ্যানেলগুলোর অনুষ্ঠানগুলোর মধ্যে অন্যতম দর্শকনন্দিত ধারাবাহিক ‘সিআইডি’।

শুধু হিন্দিই নয়, বাংলাসহ কয়েকটি ভাষায় ডাবিং করে এই ক্রাইম শোটি দেখানো হয়। ভারত ছাড়িয়ে বিভিন্ন দেশের দর্শকদের কাছেও এ ধারাবাহিকটি জনপ্রিয়।

এ ধারাবাহিকের জনপ্রিয় ডায়ালগ ‘দয়া, দরোজা তোড় দো’, বলতেন এসিপি প্রদ্যুমন। যখন সিআইডি টিমের কোনো দরজা ভাঙার প্রয়োজন পড়ত, এসিপি এ সংলাপটি বলতেন।

এছাড়াও এসিপি প্রদ্যুমনকে আরও একটি ডায়ালগ বলতে দেখা যেত ‘ কুচ তো গারবার হ্যা’।

তবে সম্প্রতি সনি এন্টারটেইনমেন্ট টেলিভিশন কর্তৃপক্ষ ‘সিআইডি’র দর্শকদের জন্য হতাশার বার্তা বয়ে নিয়ে এলো। সনি এন্টারটেইনমেন্ট টেলিভিশন কর্তৃপক্ষ দীর্ঘ ২১ বছর পর ধারাবাহিকটি বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

ভারতের একটি সংবাদসংস্থাকে চ্যানেল কর্তৃপক্ষ বলে, ‘সিআইডি’ সনি এন্টারটেইনমেন্ট টিভিতে দীর্ঘদিন ধরে চলা একটি ধারাবাহিক। এটি আমাদের জন্য অনেক বড় একটি জার্নি ছিল। তবে আগামী ২৮ অক্টোবর থেকে সিআইডি বিরতিতে যাচ্ছে।

আরও জানানো হয়, নতুন মোড়কে ‘সিআইডি’র নতুন সিজন শুরু করার কথা ভাবছেন তারা। তবে বিষয়ে বিস্তারিত কিছুই জানানো হয়নি।

‘সিআইডি’ ধারাবাহিকে এসিপি প্রদ্যুমনের ভূমিকায় শিবাজি সত্যম, ইন্সপেক্টর অভিজিতের ভূমিকায় আদিত্য শ্রীবাস্তব ও ইন্সপেক্টর দয়ার ভূমিকায় দয়ানন্দ শেঠি অভিনয় করেছেন।

ভারতের অপরাধ অনুসন্ধানী ধারাবাহিক হিসেবে এর জনপ্রিয়তা তুঙ্গে।

এ প্রসঙ্গে দয়ানন্দ শেঠি জানান, আমরা ২১ বছর ধরে ‘সিআইডি’তে কাজ করছি। সম্প্রতি নতুন কিছু পর্বের কাজও চলছিল। যার মধ্য দিয়ে ২২ বছরে পদার্পণ করার কথা।

তবে হুট করে প্রযোজক আমাদের জানান, চ্যানেলের সঙ্গে কিছু বিষয়ের জন্য শুটিং অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ করা হয়েছে।

নানা ধরণের অপরাধ ও খুনের রহস্য উদঘাটনের গল্প নিয়ে নির্মিত হতো ‘সিআইডি’র প্রতিটি পর্ব। এ ধারাবাহিকে মোট ১৫০০ পর্ব প্রচারিত হয়েছে।

 

বীকনবাংলা/শমরিতা