Lead Banner

বরফের নিচে পর্বতশ্রেণির সন্ধান!

8

বিচিত্র ডেস্ক : এন্টার্কটিকা পরোপুরিই রহস্যময় মহাদেশ। এর বেশির ভাগই বরফের চাদরে ঢাকা। আর সেই বরফের নিচে লুকিয়ে আছে আরো অনেক রহস্য। সেগুলোর সন্ধানে বিজ্ঞানীরা কাজ করছেন প্রতিনিয়ত।

এ ব্যাপারে সম্প্রতি আবিষ্কারের ভিত্তিতে ব্রিটেনের এক দল গবেষক জানিয়েছেন, পশ্চিম এন্টার্কটিকার বিস্তীর্ণ বরফস্তরের নিচে রয়েছে আস্ত একটা পর্বতশ্রেণি।

তাদের মাঝে গা-ঢাকা দিয়ে রয়েছে কয়েকশ’মাইল ছড়ানো তিনটি উপত্যকাও। এ অনুসন্ধান নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে ‘জিয়োফিজ়িক্যাল রিসার্চ লেটার্স’ পত্রিকায়।

বেশ কয়েকটি কৃত্রিম উপগ্রহ ভূপৃষ্ঠের ছবি তুলে চলেছে। মাটির গভীরে কোথায় কী রয়েছে, তার ছবিও ধরা পড়ে তাতে। কিন্তু সেগুলোর প্রায় সবই এমন ভাবে পৃথিবীকে পাক খাচ্ছে যে, দক্ষিণ মেরুর ওই অংশ এত দিন ধরা পড়েনি সেগুলোর ক্যামেরা বা রাডারে। তাই বরফ ভেদ করে দেখতে পায় এমন বিশেষ রাডারের সাহায্যে এই মহাদেশের মানচিত্র নতুনভাবে তৈরি করতে চেয়েছিলেন বিজ্ঞানীরা। আর তাতেই উঠল পর্দা।

‘পোলার গ্যাপ’ নামে গবেষকদের বিশেষ এই অনুসন্ধানে ধরা পড়েছে, পশ্চিম এবং পূর্ব এন্টার্কটিকার বরফের আস্তরণকে জুড়ে রেখেছে ওই তিন উপত্যকা। কিন্তু এতে একটা সমস্যাও আছে। বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন, ওই বরফ ঢাকা পাহাড় ও উপত্যকার কারণে সমুদ্রতলের উচ্চতা বাড়তে পারে অচিরেই।

তারা জানান, উষ্ণায়নে বিশ্বের সর্বত্র বরফ গলছে। ব্যতিক্রম নয়, এন্টার্কটিকার ওই বরফের চাদরও। বরফ গলে স্বাভাবিক নিয়মেই তা ছড়িয়ে পড়ার কথা। কিন্তু এখানে বাগড়া দিচ্ছে তলায় লুকিয়ে থাকা ওই পর্বতশ্রেণি আর উপত্যকা তিনটি। বরফ গলে দ্রুত এন্টার্কটিকার মাঝের অংশ থেকে সরে যাচ্ছে কিনারার দিকে। আর এই কারণেই আগামী দিনে সমুদ্রের পানিস্তর আরও বাড়বে বলে আশঙ্কা করছেন বিজ্ঞানীরা।

বীকনবাংলা/এইচআর