Lead Banner

নতুন নির্বাচন চান মওদুদ, তিন মাসের মধ্যে

4

রাজনৈতিক প্রতিবেদক: বর্তমান সংসদ ভেঙে দিয়ে আগামী তিন থেকে ছয় মাসের মধ্যে নতুন নির্বাচনের দাবি জানিয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলছেন,

বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ‘ভুয়া ভোটের’ সংসদের প্রতিবাদে বিএনপি আয়োজিত মানববন্ধনে তিনি এ দাবি জানান।

মওদুদ আহমদ বলেন, আজ যে সংসদ বসতে যাচ্ছে এ সংসদ জনগণের সংসদ নয় জনগণের ভোটে নির্বাচিত নয় এই নির্বাচনে মানুষ তাদের ভোটের অধিকার হারিয়েছেন। এই নির্বাচনে ভোটারদের প্রার্থীদের কেন্দ্রে যেতে দেওয়া হয়নি। এই নির্বাচন করেছে প্রশাসন, পুলিশ ও আইন শৃঙ্খলা বাহিনী। এই নির্বাচনে জনগণের কোনো সম্পৃক্ততা ছিল না।

তিনি বলেন, এই নির্বাচন দেখে আমরা হতবাক হয়েছি যেটা প্রত্যাশা করেছিলাম সেটা পাইনি। এই নির্বাচন আমরা প্রত্যাখ্যান করেছি শুধু তাই নয় অবিলম্বে নতুন করে আরেকটা নির্বাচন করার দাবি জানাচ্ছি। একটি নিরপেক্ষ অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচন হতে হবে তাহলে এদেশের মানুষ আবার ভোটের অধিকার ফিরে পাবে, এবং একটি কার্যকরী সংসদ বাংলাদেশ দেখতে পাবে। আর সেটা করার জন্য দেশের সকলকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে এবং আমাদের যে সকল নেতাকর্মী জেলে আছে, পালিয়ে আছে তাদেরকে মুক্ত করতে হবে। তাহলে দেশে একটি সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিস্থিতি সৃষ্টি হবে।

এ সময় তিনি আরও বলেন, ‘আমরা এই সরকারের পদত্যাগ দাবি করি এবং তিন থেকে ছয় মাসের মধ্যে নতুন করে নির্বাচন দাবি জানাই। আর এ জন্য সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে আন্দোলন করতে হবে।’

মানববন্ধনে আরও বক্তব্য দেন, দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড.খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ড.আব্দুল মঈন খান, ভাইস-চেয়ারম্যান বেগম সেলিমা রহমান, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম, আতাউর রহমান ঢালী, সাংগঠনিক সম্পাদক এমরান সালেহ, স্বনির্ভর বিষয়ক সম্পাদক শিরিন সুলতানা প্রমুখ।

বিএনপির প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দীন চৌধুরী এ্যানী এবং সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ সঞ্চালনায় এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন যুবদলের সিনিয়র সহ-সভাপতি মোর্তাজুল করিম বাদরু,ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক নূরুল ইসলাম নয়ন, স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি শফিউল বারী বাবু, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদির ভূইয়া জুয়েল, ছাত্রদলের সভাপতি রাজিব আহসান,সাধারন সম্পাদক আকরামুল হাসান প্রমুখ।